Call us : 09032-56212

শুভ মুজিব শতবর্ষ

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযথ মর্যাদায় মহান বিজয় দিবস উদযাপিত

Published: 2022-12-17

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযথ মর্যাদা ও উৎসাহ উদ্দীপনার সাথে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে।দিবসটি উপলক্ষ্যে শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে জাতীয় সঙ্গীতের সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর শুরু হয় বিজয় শোভাযাত্রা। বাদক দলের বাদ্য যন্ত্রের তালে, বিজয় স্লোগানে মুখরিত শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্যের পাদদেশে গিয়ে শেষ হয়। এরপর ‘বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্য’ ও ‘চির উন্নত মম শির’-এর বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ কর্মসূচীতে নেতৃত্ব দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সৌমিত্র শেখর। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম, কলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. আহমেদুল বারী, বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডিন ও প্রক্টর প্রফেসর ড. উজ্জল কুমার প্রধান, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. রিয়াদ হাসান, রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীর, শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. সুজন আলী, কর্মকর্তা পরিষদের সভাপতি প্রকৌশলী মো. জোবায়ের হোসেন, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবু, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিবসহ ছাত্র-শিক্ষকসহ অন্যরা।বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার ছাড়াও শিক্ষক সমিতি, কর্মকর্তা পরিষদ, কর্মচারী সমিতি, কর্মচারী ইউনিয়ন, বঙ্গবন্ধু নীল-দল, বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি, বিভিন্ন ডিন অফিস, চারটি হল প্রশাসনসহ অন্যান্য সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।দিবসটি স্মরণে দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের সহযোগিতায় আর্ট ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। উপাচার্য প্রফেসর ড. সৌমিত্র শেখর ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন। দুপুর ২টায় শেখ রাসেল কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে শিক্ষক কর্মকর্তাদের খেলাধুলো অনুষ্ঠিত হয়।এর আগে বেলা ১২ টায় বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাহি সাম্যের গান মুক্ত মঞ্চে ‘একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিজয় দিবসের অঙ্গীকার’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।এ সময় উপাচার্য প্রফেসর ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, আজকে এমন একটি দিন যে দিনে সারা বাংলাদেশে খুশির জোয়ার এসেছিল, বাংলাদেশ উত্তাল হয়ে উঠেছিল, এবং জয়বাংলা ধ্বনিতে প্রকম্পিত হয়েছিল। এই জয়ধ্বনি দিয়ে যে মানুষটি নির্দেশ দিয়েছিলেন সেই মানুষটি ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আজকের এই দিনে আমি গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে আমাদের হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।বিজয় দিবসের প্রত্যয় নিয়ে তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের যে সরকার রয়েছে যে সরকার আমাদের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়বার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে এই প্রত্যয়টিকে সফল করাই হচ্ছে আজকের চ্যালেঞ্জ। নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের পক্ষ থেকে আমরা বলতে চাই, এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমরা সবাই দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।এরপর বিকেল চারটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটি ও সমন্বিত হল প্রশাসনের অংশগ্রহণে আন্তঃহল বিতর্ক প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল পাঁচটা থেকে শুরু হয় পুরষ্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা সাতটায় পরিবেশিত হয় নাটক পারপার। নাটকটি রচনা করেন নাট্যব্যক্তিত্ব মাসুম রেজা, নির্দেশনায় ছিলেন ফাহিম মালেক ইভান।উল্লেখ্য, মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে গুরুত্বপূর্ণ ভবন ও স্থাপনায় আলোকসজ্জা করা